শনিবার ৬ gvP© ২০২১
  • প্রচ্ছদ » sub lead 1 » কেমিস্টস এন্ড ড্্রাগিস্টস সমিতি কুমিল্লার কতিপয় নেতৃবৃন্দের স্বেচ্ছাচারিতার প্রতিবাদে সভা


কেমিস্টস এন্ড ড্্রাগিস্টস সমিতি কুমিল্লার কতিপয় নেতৃবৃন্দের স্বেচ্ছাচারিতার প্রতিবাদে সভা


আমাদের কুমিল্লা .কম :
02.02.2021

স্টাফ রিপোর্টার।।
কুমিল্লায় বাংলাদেশ কেমিস্টস এন্ড ড্্রাগিস্টস সমিতি কুমিল্লা জেলা শাখার কতিপয় দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সভা হয়েছে। এসময় বক্তারা বর্তমান কমিটির সভাপতি এনায়েত উল্লাহ, সহসভাপতি মো. ফয়েজসহ কমিটির কয়েকজন নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতা, আর্থিক অনিয়ম ও দুর্নীতির নানা অভিযোগ তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন। তারা সমিতির বৃহৎ স্বার্থকে জলাঞ্জলি দিয়ে ব্যক্তিস্বার্থে সমিতির কার্যলয় শাসনগাছা থেকে পুলিশ লাইন এলাকায় স্থানান্তরের অপচেষ্টার তীব্র প্রতিবাদ জানান। প্রতিবাদ চালিয়ে যেতে সভা শেষে মো.জহিরুল ইসলামকে আহ্বায়ক করে ১৭ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়।
গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় নগরীর রেসকোর্স এলাকায় ইস্টার্ন ইয়াকুব প্লাজার বিপরীত পাশে আয়োজিত ‘সমিতির সাধারণ সদস্যবৃন্দের’ ব্যানারে ওষুধ মার্কেটের সামনে আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ কেমিস্টস এন্ড ড্্রাগিস্টস সমিতি কুমিল্লা জেলা শাখার সিনিয়র সহসভাপতি জহিরুল ইসলাম। বক্তব্য রাখেন সহসভাপতি আবদুল আলিম, সদস্য জুলফিকার আগা বাসেত, মুজিবুর রহমান। আরো বক্তব্য রাখেন, কুমিল্লা মেডিসিন কমপ্লেক্স কার্যকরী কমিটির সদস্য সাজেদুল ইসলাম আলম,বাবু নিখিল চন্দ্র দত্ত, বাবু স্বপন দত্ত, রায়মোহন দাস, সন্তুষ পাল প্রমুখ। সভা সঞ্চালনা করেন আলমগীর হোসেন দাদু।
এসময় বক্তারা বলেন, সমিতির সভাপতি এনায়েত উল্লাহ সমিতির গঠনতন্ত্র উপেক্ষা করে গুটিকয়েক লোককে নিয়ে নিজের খেয়ালখুশি মতো সমিতির কার্যক্রম চালাচ্ছেন। সভা ডাকলেও সভার সিদ্ধান্ত রেজুলেশনভুক্ত করছেন না। টাকার বিনিময়ে সদস্য বানাচ্ছেন। তারা সমিতির সাধারণ সদস্যদের স্বার্থ না দেখে নিজেদের ফায়দা লুটে ব্যস্ত রয়েছেন। তারা তাদের সংগঠন বিরোধী কর্মকাণ্ডের প্রতিবাদ জানিয়ে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বক্তারা বলেন, কার্যলয় স্থানান্তর বন্ধসহ অনিয়ম ও স্বেচ্ছাচারিতার বিরূদ্ধে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ না করা হলে এক দফা এক দাবিতে সমতির সাধারণ সদস্যদের নিয়ে বৃহৎ আন্দোলনে ডাক দেওয়া হবে। সমিতির ফান্ডে থাকা কোটি টাকা কোথায় গেলো তাঁর হিসাব দিতে হবে।
প্রতিবাদ চালিয়ে যেতে ১৭ সদস্যের আহ্বায়ক কমিটি গঠন:
প্রতিবাদ সভা শেষে মো.জহিরুল ইসলামকে আহ্বায়ক করে ১৫ সদস্যের আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির সদস্যরা হলেন আবদুল আলীম, জুলফিকার আগা বাসেত, আলমগীর হোসেন দাদু, নিখিল চন্দ্র দত্ত, সাজেদুল ইসলাম আলম, মজিবুর রহমান,স্বপন দত্ত, রায়মোহন দাস, নুরুল আমীন মজুমদার, সন্যহিত কর,সন্তোষ পাল, মাইনুল হুদা, সোহেল আহামেদ, প্রহলাদ দত্ত, কামাল হোসেন, মো. গিয়াস উদ্দিন।