বুধবার ২৯ †m‡Þ¤^i ২০২১
  • প্রচ্ছদ » sub lead 1 » পুকুরের পাড়ভাঙা মাটিচাপায় প্রাণ গেল দিনমজুরের


পুকুরের পাড়ভাঙা মাটিচাপায় প্রাণ গেল দিনমজুরের


আমাদের কুমিল্লা .কম :
30.06.2021

দেবিদ্বার প্রতিনিধি।।
দেবিদ্বারে এক দিনমজুরের প্রাণ গেল পুকুরের পাড়ভাঙা মাটির চাপায়। ঘটনাটি ঘটে বুধবার সকাল সাড়ে ১১টায় উপজেলার ৪ নং সুবিল ইউনিয়নের পশ্চিম পোমকাড়া গ্রামের ছিদ্দিকুর রহমানের পুকুরে। নিহত দিনমজুর সফিকুল ইসলাম(২৫) পশ্চিম পোমকাড়া গ্রামের মো. মোখলেসুর রহমানের পুত্র।
দেবিদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আরিফুর রহমান, পরিদর্শক (তদন্ত) মো. ছমি উদ্দিন, উপ-পরিদর্শক(এসআই) আব্দুল বাতেনসহ একদল পুলিশ বেলা দেড়টায় ঘটনাস্থল থেকে নিহত দিনমজুরের মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন। এসময় পুকুরের মালিক মৃত মুন্নাফ মিয়ার পুত্র মো. ছিদ্দিকুর রহমানকেও(৪০) থানায় নিয়ে আসেন।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, পশ্চিম পোমকাড়া গ্রামের মৃত মুন্নাফ মিয়ার পুত্র মো. ছিদ্দিকুর রহমান(৪০) তার নিজ পুকুরের পাড় খনন করেন। ওই পুকুরের পাড় খনন করার সময় পাড়ের নিচের অংশে প্রায় ৬-৭ ফুট ভেতরের দিকে সুড়ঙ্গের ন্যায় কেটে ফেলেন। মাটিকাটা শ্রমিকরা ঝুঁকি নিয়ে পুকুড়ের পারের ভেতরের অংশের মাটি কাটতে অপারগতা জানালেও চাপের মুখে মাটি কাটছিলেন। এক পর্যায়ে বেলা সাড়ে ১১টায় বৃষ্টিতে ভেজা পুকুরের পাড়টি ওপরে থাকা গাছ-গাছালির ভার সইতে না পেরে ধসে পড়ে। এসময় দিনমজুর সফিক ঘটনাস্থলেই মাটি চাপায় মারা যান। পরে স্থানীয়রা মাটি সরিয়ে তাকে উদ্ধর করেন।
মাটিকাটার কাজে নিয়োজিত ছিলেন চার শ্রমিক, ওরা সবাই পশ্চিম পোমকাড়া গ্রামের বাসিন্দা। ওরা হলেন, মান্নান মিয়ার ছেলে দেলোয়ার হোসেন(৪২), আ. সামাদের ছেলে সোহেল মিয়া(২৫), সামসুল হকের পুত্র রুবেল মিয়া(২২) ও মো. মোখলেসুর রহমানের পুত্র নিহত শ্রমিক সফিকুল ইসলাম(২৫)। মাটি কাটার দায়িত্বে ছিলেন সফিক ও দেলোয়ার এবং মাটি নেয়ার দায়িত্বে ছিলেন রুবেল ও সোহেল।
প্রতিবেশী গোলাম রব্বানী জানান, প্রায় ৩-৪ বছর পূর্বে উপজেলার হোসেনপুর গ্রামের আব্দুল খালেকের মেয়েকে বিয়ে করেছিল সফিক। রায়হান নামে তার একটি ৮মাস বয়সী পুত্র সন্তান আছে। সফিক বিয়ের পর পরিবারের অভাব ঘুচাতে দায়-দেনা করে বিদেশ পাড়ি দিয়েছিলেন, সর্বস্বান্ত হয়ে দেশে এসে এখন দিনমজুরের কাজ করছিলেন।
দেবিদ্বার থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. ছমি উদ্দিন জানান, নিহতের মরদেহ এবং পুকুরের মালিককে থানায় নিয়ে এসেছি। ঘটনাটি তদন্তের পর এবং নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা করলে মামলা নেয়া হবে। নিহতের মরদেহ আগামীকাল (বৃহস্পতিবার) ময়নাতদন্তের জন্য কুমেক হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে।