রবিবার ৯ †g ২০২১


সিসিএন বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত আন্তর্জাতিক ই-কনফারেন্স অনুষ্ঠিত


আমাদের কুমিল্লা .কম :
25.01.2021

স্টাফ রির্পোটার।।
সফলভাবে সম্পন্ন হলো কুমিল্লার সিসিএন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয় আয়োজিত আন্তর্জাতিক ই-কনফারেন্স। বৈশি^ক মহামারী করোনাভাইরাসের কারণে গত ২৩ ও ২৪ জানুয়ারী ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্মে অনুষ্ঠিত “ইন্টারন্যাশনাল ই-কনফারেন্স অন ইন্ড্রাস্ট্রিয়াল রিভোলিউশন ৪.০: শেপিং দ্যা ফিউচার গ্লোবালি ইন দ্যা নিউ নর্ম” শীর্ষক দুইদিন ব্যাপী কনফারেন্সের উদ্বোধনী সেশনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ এক্রিডিটেশন কাউন্সিলের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মেসবাহউদ্দিন আহমেদ। সিসিএন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়ের বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সভাপতি, সাবেক আইনমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট আবদুল মতিন খসরু এমপি কনফারেন্সের উদ্বোধনী সেশনে সভাপতিত্ব করার কথা থাকলেও তিনি রাষ্ট্রীয় কাজে ব্যস্ত থাকায় বিশ^বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ও বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সহ সভাপতি মো. তারিকুল ইসলাম চৌধুরী উদ্বোধনী সেশনে সভাপতিত্ব করেন। অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মালদ্বীপের শিক্ষামন্ত্রী ড. আবদুল্লা রাশিদ। বিশ^বিদ্যালয়ের প্রকৌশল অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. শাহ জাহানের স্বাগত বক্তব্যে কনফারেন্সে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কনফারেন্সের কনসেপ্ট পার্টনার গ্লোবাল একাডেমিকস রিসার্চ একাডেমির প্রতিষ্ঠাতা ও অনারারি চিফ এডভাইজার অধ্যাপক ড. আসিফ মাহবুব করিম।
দুইদিন ব্যাপী ই-কনফারেন্সে বিশে^র ১২ টি দেশের ২০ প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা অংশ নেন এবং পেপার উপস্থাপন করেন। কনফারেন্সে দুইটি টেকনিক্যাল সেশন পরিচালনা করেন ওমান সরকারের সাইবার সিকিউরিটি এডভাইসার ড. হাইথাম ও ড. বদর এবং চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়ের কমপিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. এম. মশিউল হক।
কনফারেন্সে পেপার উপস্থাপন করেন দুবাইয়ের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা মিস করবালাগে কুয়াগেই, মালয়েশিয়ার এশিয়া ই ইউনিভার্সিটির প্রফেসর ড. ও ইউ হুক, খালফান আল সুকরি, ইনফ্রাস্ট্রাকচার ইউনিভার্সিটি অব কুয়ালালামপুর এর প্রফেসর ড. মুই ওয়াহ কিয়ান, জাম্বিয়ার চাভেনডিশ ইউনিভার্সিটির ডেপুটি ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. অসকার কেরিয়া, পাকিস্তানের ন্যাশনাল টেক্সটাইল ইউনিভার্সিটির প্রফেসর ড. হাফসা জামশিদ, নাজরেস আহমেদ, পাকিস্তান এনইডির প্রফেসর ড. আল্লাহ দাদ, রয়েল কোর্ট অব ওমানের এডভাইজার ড. মুথুকুমার রামা, স্টামফোর্ড ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের সহকারী অধ্যাপক ড. নাদিয়া ফারহানা, জাম্বিয়ার চাভেনডিশ ইউনিভার্সিটির সহকারী অধ্যাপক ড. চ্রিন হাপোমপিউ, ড. থোং লি চোং, মালয়েশিয়ার রিস্ক সিকিউরিটি ম্যানেজমেন্ট এক্সপার্ট ড. ডেভিড সোথি, গ্লোবাল একাডেমি অব হলিস্টিক লিডারশিপ এন্ড কোচিং ইন্ক. এর প্রধান নির্বাহী মি. এডওয়ার্ড প্রবীর মন্ডল, লাইবেরিয়ার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা মি. এমাউয়েল বোন ওয়েডন, কেনিয়ার উম্মা ইউনিভার্সিটির রেজিস্ট্রার ড. আলী আদম, ওমানের ড. আলী সেলিম সাঈদ আল সেকালি, জাম্বিয়ার ইউনিক্যাফ ইউনিভার্সিটির ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. ক্রিসটাইম ফিরি মুশিবুয়ে, নাইজেরিয়ার ওলা আপ ফাউন্ডেশনের ড. বিসি আকিন আলাবি, সিসিএন বিশ^বিদ্যালয়ের প্রভাষক নুরজাহান বেগম, তমালিকা রায়, আফরোজা ইসলাম, শরীফুল ইসলাম, মো. মাজহারুল ইসলাম ভূইয়া, নয়ন কুমার সাধু, নুরুল আমিন, নূশরাত হাশমি, আবু ওবাইদা রাহিদ, দাউদ হাসান, ইকবাল আহমেদ, এস এম শাহিদুল আলম, মেহেদী হাসান বাপ্পী।
দুইদিন ব্যাপী কনফারেন্সের শেষ দিন ২৪ জানুয়ারি বিকালে সিসিএন বিশ^বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ও বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সহ সভাপতি মো. তারিকুল ইসলাম চৌধুরী সমাপনী বক্তব্যের মাধ্যমে কনফারেন্সের সমাপ্তি ঘোষণা করেন এবং ২০২১ সালের ৫-৬ সেপ্টেম্বরে বিশ^বিদ্যালয়ের উদ্যেগে পরবর্তী কনফারেন্স আয়োজনের ঘোষণা দেন।
প্রথম আন্তর্জাতিক কনফারেন্স সফলভাবে সম্পন্নের পর অনুভূতি ব্যক্ত করেন সিসিএন বিশ^বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ও বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সহ সভাপতি এবং কনফারেন্স আয়োজন কমিটির সদস্য সচিব মো. তারিকুল ইসলাম চৌধুরী। তিনি বলেন, সিসিএন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়ের জন্য এটি একটি ঐতিহাসিক অর্জন। এক ঐতিহাসিক আয়োজনের স্বাক্ষী হয়েছে বিশ^বিদ্যালয়ের সহস্রাধিক শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারী-অভিভাবক ও শুভানূধ্যায়ীরা। যদিও এটি আমাদের ক্যাম্পাসে আয়োজনের লক্ষ্য নিয়ে কাজ শুরু হয়েছিলো, কিন্তু বৈশি^ক মহামারীর কারণে তা ভার্চুয়ালী সম্পন্ন করতে হয়েছে। তারপরও আমরা অত্যন্ত আনন্দিত ও গর্বিত। বিশ^বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার ৬ বছরের মধ্যে আন্তর্জাতিক কনফারেন্স আয়োজন করার মতন এত বিশাল একটি অর্জন আমাদের থলিতে যুক্ত হয়েছে। এই আনন্দঘন মুহুর্তে আমি বিশ^বিদ্যালয়ের বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সভাপতি, সাবেক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট আবদুল মতিন খসরু এমপি, বিশ^বিদ্যালয়ের প্রকৌশল অনুষদের ডিন ও কনফারেন্স আয়োজক কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. মো. শাহজাহান এবং কনফারেন্সের কনসেপ্ট এন্ড টেকনিক্যাল পার্টনার অধ্যাপক ড. আসিফ মাহবুব করিম, এই বিশ^বিদ্যালয়ের প্রভাষক ইকবাল আহমেদ ও তমালিকা রায়সহ কনফারেন্স সফলভাবে সম্পন্নের জন্য প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে কাজ করে যাওয়া সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি। বিশ^বিদ্যালয়ের ভবিষ্যত পথচলায় সকলের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করছি।