শুক্রবার ৩০ জুলাই ২০২১


নৌকা পেলেন আলোচনার বাইরে থাকা আবুল হাশেম


আমাদের কুমিল্লা .কম :
12.06.2021

জহিরুল হক বাবু,বুড়িচং।।
কুমিল্লা-৫ (বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়া) আসনের উপনির্বাচনে আলোচনার বাইরে থেকেও নৌকা প্রতীক পেয়েছেন অ্যাডভোকেট আবুল হাশেম খান। তিনি বুড়িচং উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি।
নৌকা প্রতীক পাওয়া আবুল হাশেম খান জানান, প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরাও ফোনে তাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। নির্বাচিত হলে বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়া থেকে প্রথমে মাদক দূর করবেন। পাশাপাশি দুই উপজেলা সদরের যানজট নিরসনে পরিকল্পনা গ্রহণ করবেন। এছাড়াও দুই উপজেলাকে পৌরসভায় উন্নীত করতে বিশেষ পরিকল্পনা হাতে নিবেন।
এদিকে মনোনয়ন বঞ্চিত প্রার্থীদের মধ্যে হেভিওয়েট প্রার্থী ছিলেন কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়মী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন স্বপন। তবে দলীয় প্রার্থীর প্রতি সমর্থন দিয়ে তার ফেসবুকে লিখেন, অ্যাড. আবুল হাশেম খানকে নমিনেশন দেয়ায়, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ।
আরেক প্রতিদ্বন্দ্বী আবু ছালেক মো. সেলিম রেজা সৌরভ বেশ আলোচনায় ছিলেন। তিনি চট্টগ্রাম বিশ^বিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক ও সোনার বাংলা কলেজের অধ্যক্ষ। তিনি জানান, আমি দলের বাইরে নই। দলীয় সিদ্ধান্তের প্রতি আমি অবিচল।
প্রয়াত সাংসদ অ্যাড.আবদুল মতিন খসরুর স্ত্রী সেলিমা সোবহান খসরু জানান, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও দলীয় নীতি নির্ধারকরা যাকে যোগ্য মনে করেছেন তাকে মনোনয়ন দিয়েছেন। আমার এ বিষয়ে কোন মন্তব্য নেই।
দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ নেতা আবদুছ ছালাম বেগ বলেন, আবুল হাশেম প্রবীণ নেতা। মাননীয় প্রধানন্ত্রী শেখ হাসিনা যাকে যোগ্য মনে করেছেন তাকেই দলীয় প্রার্থী করেছেন। নেতা-কর্মীদের নিয়ে দলীয় প্রার্থীর জন্য কাজ করব।

কেন্দ্রীয় যুবলীগের সহ-সম্পাদক এহতেশামুল হাসান ভূইয়া রুমি জানান, মাননীয় প্রধানন্ত্রী শেখ হাসিনা যাকে যোগ্য মনে করেছেন তাকেই দলীয় প্রার্থী করেছেন। আমি দলীয় প্রার্থীর জন্য কাজ করব।

এদিকে আবুল হাশেম খানের নৌকা প্রতীক পাওয়ায় দলীয় নেতাকর্মীরা স্বাগত জানিয়ে বুড়িচং বাজারে আনন্দ মিছিল করেন। আনন্দ মিছিলের নেতৃত্ব দেন বুড়িচং উপজেলার সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও বুড়িচং উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক অ্যাডভোকেট রেজাউল করিম।
উল্লেখ্য, বীরমুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট আবুল হাশেম খান কুমিল্লা বুড়িচং উপজেলার উত্তরগ্রামের সন্তান। তার বাবা প্রয়াত আবদুল হাকিম ও মাতা প্রয়াত আতরের নেছা। তিনি কুমিল্লা আইনজীবী সমিতির দুইবার সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন।