শুক্রবার ১৭ †m‡Þ¤^i ২০২১
  • প্রচ্ছদ » sub lead 1 » কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড সরকারি মডেল কলেজের অনলাইন শিক্ষাকার্যক্রম


কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড সরকারি মডেল কলেজের অনলাইন শিক্ষাকার্যক্রম


আমাদের কুমিল্লা .কম :
19.06.2021

ড. এ কে এম এমদাদুল হক
করোনা ভাইরাস(কোভিড ১৯)সংক্রমণ প্রতিরোধে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণার সাথে সাথে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পরিস্থিতি পর্যক্ষেণ করে কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড সরকারি মডেল কলেজ বিগত ২৯ মার্চ ২০২০ খ্রি. থেকে অনলাইন ক্লাস চালু করে। প্রথমে ফ্রি জুম ভার্সনে অনলাইন ক্লাস গ্রহণ করা হতো। এ প্রক্রিয়ায় প্রত্যেক শিক্ষকের নিজস্ব জুম আইডি ছিল। সকল শিক্ষকের জুম আইডি ও পাসওয়ার্ড ক্ষুধে বার্তার মাধ্যমে অভিভাবকবৃন্দকে জানিয়ে দেয়া হতো। প্রকাশ করা হতো মাসিক রুটিন। শিক্ষার্থীরা রুটিন অনুযায়ী সংশ্লিষ্ট শিক্ষকের জুম আইডি ও পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে অনলাইন ক্লাস করত। প্রথম পর্যায়ে প্রতিদিন ৭টি জুম ক্লাস ও ৫ টি ফেসবুক লাইভ ক্লাস সম্প্রচার করা হতো। পরবর্তীতে কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড সরকারি মডেল কলেজে “বাংলাদেশ গবেষণা ও শিক্ষা নেটওয়ার্কের(বিডিরেন)”-মাধ্যমে ভার্চুয়াল ক্লাস ও অনলাইন বিভিন্ন কার্যক্রম চালু করা হয়।এখন এ প্রতিষ্ঠান প্রতিদিন ২৭ টি জুম ক্লাস ও ৩ টি ফেসবুক লাইভ ক্লাস গ্রহণ করে থাকে। বিডিরেন প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড সরকারি মডেল কলেজের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা জুম অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে আরো সহজভাবে অনলাইন ক্লাসে অংশগ্রহণ করতে পারছে।বর্তমান বিশ্বপরিস্থিতিতে কোভিড-১৯ এর কারণে সারা দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহ প্রায় দেড় বছরেরও অধিক বন্ধ আছে। এই পরিস্থিতিতে কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড সরকারি মডেল কলেজের শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার ক্ষতি যেন না হয় সে জন্য অনলাইনে ফ্রি ভার্সনে জুম প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার বাদ দিয়ে বিডিরেন জুম প্ল্যাটফর্মে সংযুক্ত হয়েছে। জুম ফ্রি ভার্সনের মাধ্যমে এক সাথে একশত জনের বেশি শিক্ষার্থীকে ক্লাসে সংযুক্ত করা সম্ভব ছিল না। ছিল চল্লিশ মিনিটের সময়ের বাধ্যবাধকতা। কোনো অভিভাবক সমাবেশ, মিটিং,সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান বা সেমিনার- সিম্পোজিয়াম আয়োজনের ক্ষেত্রেও সময়ের সীমাবদ্ধতা সমস্যা সৃষ্টি করেছিল।এ সব সমস্যাগুলো থেকে উত্তরণের জন্য কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড সরকারি মডেল কলেজ “বাংলাদেশ গবেষণা ও শিক্ষা নেটওর্য়াক (বিডিরেন)”- এর নিকট অ্যাসোসিয়েট মেম্বার হওয়ার জন্য আবেদন করে।আবেদন বিবেচনায় নিয়ে বিডিরেন কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড সরকারি মডেল কলেজকে এসোসিয়েট মেম্বার হিসেবে তালিকাভুক্ত করে। ফলে বর্তমানে কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড সরকারি মডেল কলেজ বিডিরেন প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে অনলাইন ক্লাস কার্যক্রম সুন্দর ও সুষ্ঠভাবে পালন করছে। এই অ্যাপ্লিকেশনটির মাধ্যমে এখন ক্লাস গ্রহণ প্রক্রিয়া অনেক সহজ হয়েছে। আনলিমিটেড সময় ভার্চুয়াল ক্লাস ও অনলাইন ক্লাস বা অন্যান্য অনলাইন কার্যক্রম পরিচালনা করা যাচ্ছে। ক্লাস লিংকে ক্লিক করেই শিক্ষার্থীরা ক্লাসে ডুকে যাচ্ছে। অটো উপস্থিতি রেকর্ড হয়ে যাচ্ছে। এতে শিক্ষক,শিক্ষার্থী ও প্রতিষ্ঠান উপকৃত হচ্ছে। বর্তমানে ঢাকা বিশ^বিদ্যালয় ও বুয়েটসহ অধিকাংশ পাবলিক বিশ^বিদ্যালয় ,বেসরকারি বিশ^বিদ্যালয়,মেডিকেল কলেজ বিডিরেন প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করছে।প্রতি মাসে প্রকাশিত হচ্ছে অনলাইন ক্লাস প্রতিবেদন এবং র‌্যাংকিং।বিডিরেন সদস্যভুক্ত দেশের পাবলিক বিশ^বিদ্যালয় ও কলেজ সমূহের মধ্যে প্রকাশিত কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড সরকারি মডেল কলেজের অনলাইন ক্লাস প্রতিবেদন ও র‌্যাংকিং,২০২১ নিম্নে দেয়া হলো।

কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড সরকারি মডেল কলেজের ক্লাসগুলো মনিটর করা হতো প্রথম থেকেই যা বর্তমানেও চলমান রয়েছে। পাঠদানকারী শিক্ষকদের জবাবদিহিতা ও দায়িত্বশীলতাও নিশ্চিত করা হয়েছে। সম্মানিত শিক্ষকগণ কর্তৃক রুটিন অনুযায়ী নির্দিষ্ট সময়ে অনলাইন ক্লাস গ্রহণ করা এবং ক্লাস শেষে ক্লাসের ভিডিও এবং গুগল ফর্মে ক্লাস গ্রহণের তারিখ, সময়,পাঠদানের বিষয়,আলোচ্য বিষয় ও ক্লাসে শিক্ষার্থীর উপস্থিতির সংখ্যা উল্লেখপূর্বক প্রতিবেদন জমা দেয়ার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। তাছাড়া এমএমসিতে প্রতিদিন ক্লাস তথ্য প্রদান করা হয়। মনিটরিং ব্যবস্থা ডিজিটালাইজেশন করা হয়েছে।এর মাধ্যমে অত্র কলেজের প্রায় শতভাগ শিক্ষার্থীদেরকে অনলাইন ক্লাসে সম্পৃক্ত করা সম্ভব হয়েছে।
অনলাইন ক্লাসের পর অনলাইন পরীক্ষা গ্রহণেও এগিয়ে কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড সরকারি মডেল কলেজ। কলেজটি বিগত ১ সেপ্টেম্বর ২০২০ থেতে ৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রি. তারিখ পর্যন্ত ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্য়ের একাদশ শ্রেণির বিশেষ অনলাইন পরীক্ষা গ্রহণ করে।সে সময় একাদশ শ্রেণির ৩৪২ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৩১৮ জন অনলাইন পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে। পরীক্ষায় অংশগ্রহণের শতকরা হার ছিল ৯৩ %। বিজ্ঞান বিভাগে ১৮০ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ১৬৩ জন অনলাইন পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছে। এ বিভাগে অনলাইন পরীক্ষায় অংশগ্রহণের হার ছিল ৯১%।ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে ৮০ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৭৫ জন অনলাইন পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে।এ বিভাগে অনলাইন পরীক্ষায় অংশগ্রহণের হার ছিল ৯৫ %। মানবিক বিভাগে ৮২ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৮০ জন অনলাইন পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে। এ বিভাগে অনলাইন পরীক্ষায় অংশগ্রহণের হার ছিল ৯৮%। পরিশ্রম করলে সাফল্য অনিবার্ষ। এ প্রতিষ্ঠানটি হঠাৎ অনলাইন পরীক্ষা গ্রহণ করেনি।আগে শিক্ষার্থীদের অনলাইন পরীক্ষা দেয়ার পদ্ধতি শেখানো হয়েছে।বিগত ৩০ আগস্ট ২০২০ খ্রি. তারিখে মোট ৪ টি সেশনে ভাগ করে ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রাম আয়োজন করা হয়েছিল। এ প্রোগ্রামে শিক্ষার্থীদের প্র্যাকটিক্যালি অনলাইন পরীক্ষা দেয়ার পদ্ধতি শেখানো হয়েছে। আমরা দুটি ডেমো অনলাইন পরীক্ষাও গ্রহণ করা হয়। একটি ১৮ মার্চ ২০২০ খ্রি. তারিখে এবং আরেকটি ৩০ আগস্ট ২০২০ খ্রি. তারিখে।প্রথম ডেমো পরীক্ষায় ৪৮ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। দ্বিতীয় ডেমো অনলাইন পরীক্ষায় ৩৬৩ জন শিক্ষার্থী সফলভাবে অংশগ্রহণ করে।এখন এ প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের অনলাইন পরীক্ষা দেয়ার ভীতি চলে গেছে।তারা আত্মবিশ^াসী হয়ে উঠেছে।আর এ জন্যই অনলাইন ক্লাসের পর এবার অনলাইন পরীক্ষা গ্রহণেও প্রতিষ্ঠানটি অভাবনীয় সাফল্য পেয়েছে।। আগামী ২২ জুন ২০২১ থেকে ২০২১ সালের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের জন্য আয়োজন করা হয়েছে বিশেষ অনলাইন পরীক্ষা।
কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড সরকারি মডেল কলেজের স্কুল ও কলেজ শাখার ভর্তি করা হয় সম্পূর্ণ অনলাইনে। অনলাইনে বেতন ও অন্যান্য ফি পরিশোধের ব্যবস্থা করা হয়েছে। অনলাইনে বিকাশ,নগদ ও শিওর ক্যাশের মাধ্যমে কলেজের বেতন ও অন্যান্য ফি সমূহ পরিশোধেরও ব্যবস্থা করা হয়েছে।শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের উৎসাহিত করার জন্য বেশ কিছু পদক্ষেপও গ্রহণ করা হয়েছে। শ্রেষ্ঠ অনলাইন ক্লাস গ্রহণকারী শিক্ষক ও শিক্ষার্থী নির্বাচিত করা ও পুরস্কার প্রদানের উদ্যোগ অন্যতম।অনলাইন ক্লাস ব্যবস্থাপনা বিষয়ে শিক্ষকবৃন্দের জন্য ভার্চুয়াল ইনহাইজ প্রশিক্ষণেরও আয়োজন করা হয়েছে। প্রতি মাসে ১ টি অনলাইন অভিভাবক সভা আয়োজন করা হয়। ছাত্র, শিক্ষক, অভিভাবককে স¤পৃক্ত করে মাঝে মাঝে ফেসবুক লাইভ প্রোগ্রাম করা হয়। অনলাইনে আয়োজন করা হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান । তাছাড়া অনলাইনে জাতীয় দিবস সমূহ পালন করা হয়। এ বছর গণহত্যা দিবস, মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস,‘স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী : স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল বাংলাদেশ’ উদ্যাপন উপলক্ষে কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড সরকারি মডেল কলেজ অনলাইনে ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করে।২৫ মার্চ ২০২১ রাত ৯.৩০ মিনিটে অনলাইনে গণহত্যার স্মৃতিচারণ ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে।অনুষ্ঠানটি কলেজের ফেসবুক পেজ এ লাইভ সম্প্রচার করা হয়।অনলাইনে এ আলোচনায় অতিথি হিসেবে অংশগ্রহণ করবেন বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রফেসর ইন্দুভূষণ ভৌমিক,বীর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার জনাব সফিউল আলম বাবুল প্রমুখ। ২৬ মার্চ ২০২১ সকাল ১০টায় অনলাইনে ‘স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী; স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল বাংলাদেশ’-শীর্ষক ভার্চুয়াল আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।অনুষ্ঠানটি কলেজ ফেসবুক পেজ এ লাইভ সম্প্রচার করা হয়। প্রধান অতিথি ছিলেন প্রফেসর মো. আবদুস ছালাম, চেয়ারম্যান, মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড কুমিল্লা।এ ভাবে কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড সরকারি মডেল কলেজ ধারাবাহিক ভাবে অনলাইনে জাতীয় দিবস সমূহ পালন করে আসছে।
করোনাকালীন পরিস্থিতিতি বিডিরেন জুম প্য্যাটফর্ম ব্যবহার করে বিগত মার্চ ২০২০ থেকে ধারাবাহিক ভাবে কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড সরকারি মডেল কলেজ ব্যাপক অনলাইন ক্লাস পরিচালনা করায় প্রতিষ্ঠানটির প্রতি অভিভাবকদের ব্যাপক আগ্রহ সৃষ্টি হয়েছে।পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে খাপ খেয়ে চলতে সক্ষম এ প্রতিষ্ঠানটি ২০১৯ ও ২০২০ সালে পর পর দুইবার কলেজ পর্যায়ে কুমিল্লা জেলার শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠানের স্বীকৃতি অর্জন করেছে।এছাড়া ২০১৯ সালে কুমিল্লা জেলা প্রশাসন আয়োজিত ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলায় কলেজটি জেলার শ্রেষ্ঠ ডিজিটাল প্রতিষ্ঠানের স্বীকৃতি অর্জন করে।
ড. এ কে এম এমদাদুল হক : অধ্যক্ষ,কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড সরকারি মডেল কলেজ।