শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১
Space Advertisement
Space For advertisement


কুবিতে স্নাতক পরীক্ষার দাবিতে মানববন্ধন


আমাদের কুমিল্লা .কম :
01.09.2021

স্নাতকোত্তরের পাশাপাশি স্নাতকের চূড়ান্ত পরীক্ষা নেওয়ার দাবিতে মানববন্ধন করেছে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান নিয়ে এ দাবি জানান তারা।

গত ২৯ আগস্ট সশরীরে শুধু স্নাতকোত্তরের চূড়ান্ত পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়। তবে স্নাতকের পরীক্ষা নিয়ে কোনো রূপরেখা না দেওয়ায় আজ মানবনন্ধন করেছে স্নাতকের শিক্ষার্থীরা। মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন প্ল্যাকার্ড হাতে নিয়ে প্রশাসনের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানান।

এ সময় শিক্ষার্থীরা স্নাতকোত্তরের পাশাপাশি স্নাতকের পরীক্ষা নেওয়ারও আহ্বান করেন। তারা বলেন, স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থীদের একটি সার্টিফিকেট আছে। যার ফলে তারা চাকরির বাজারে আবেদনের সুযোগ পাচ্ছে। কিন্তু যারা সাড়ে ৫ বছরেও স্নাতক শেষ করতে পারেনি, তারা কোনো চাকরিতে আবেদনের সুযোগ পাচ্ছে না।

প্রত্নতত্ত্ব ১১তম ব্যাচের শিক্ষার্থী রফিকুল ইসলাম বলেন, আমাদের ৪ বছর ৫ মাস অতিবাহিত হওয়ার পরও মাত্র ৪টি সেমিস্টার শেষ করতে পেরেছি। ২০১৯ সালে আমরা সেশনজট নিরসনের দাবিতে আন্দোলন করলে উপাচার্য মহোদয় নিজ উদ্যোগে একাডেমিক ক্যালেন্ডার করে দিয়েছিলেন। কিন্তু আমাদের বিভাগ একাডেমিক ক্যালেন্ডারের তোয়াক্কা না করে গতানুগতিক নিয়মেই চলেছে। যার ফলে আমাদের আর পরীক্ষায় বসা হয়নি।

শিক্ষার্থীদের দাবির মুখে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এমরান কবির চৌধুরী বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভাগীয় প্রধান ও ছাত্র প্রতিনিধিদের সঙ্গে বসে দ্রুত সময়ের মধ্যে অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে স্নাতকেরও (শুধু ৪র্থ বর্ষ) পরীক্ষা শুরুর ঘোষণা দেন। শিক্ষার্থীদের কথা চিন্তা করে স্নাতকোত্তরের পাশাপাশি স্নাতক ১০ম ব্যাচেরও পরীক্ষা শুরু হবে। পরবর্তীতে ধাপে ধাপে সব ব্যাচের পরীক্ষা শুরু হবে।

করোনা মহামারির কারণে গেল বছরের ১৭ মার্চ থেকে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ হওয়ার পর সে বছরের ২০ ডিসেম্বর স্নাতক-স্নাতকোত্তর শেষ সেমিস্টারের চূড়ান্ত পরীক্ষার মাধ্যমে বিভিন্ন বিভাগের পরীক্ষা নেওয়া শুরু করে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়।

তবে করোনা প্রকোপ বৃদ্ধি পাওয়ায় শিক্ষা মন্ত্রণালায়ের নির্দেশনা অনুযায়ী চলতি বছরের ২৩ ফেব্রুয়ারি পুনরায় সব ধরনের পরীক্ষা কার্যক্রম বন্ধ করে দেয় কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়।

এর পর ১৩ জুন দ্বিতীয় দফা সশরীরে পরীক্ষা শুরু করলেও ২৫ জুন আবার তা স্থগিত করা হয়। সর্বশেষ আগামী ৯ সেপ্টেম্বর থেকে পুনরায় পরীক্ষা নেওয়ার ঘোষণা দেওয়া হয়।